শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১০:৫৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
আদিতমারীতে করোনা মুক্তদের মাঝে চিকিৎসা সনদ বিতরণ যমুনায় তীব্রগতিতে পানি বৃদ্ধ, সিরাজগঞ্জে স্পারবাঁধে ধস শেরপুরে অভুক্তদের মাঝে যুবলীগ নেতার খাবার বিতরণ তাড়াশে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার উপর হামলাকারী আসামী গ্রেফতারের দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ সিরাজগঞ্জে ওসিসহ জেলায় নতুন করে আরও ১২ জন করোনা শনাক্ত সিরাজগঞ্জে লকডাউনের মধ্যেও নবম শ্রেণীর ছাত্রীর বাল্যবিবাহ বন্ধ করল এসিল্যান্ড সলঙ্গা থানার ওসি সহ রায়গন্জে ৪ জন করোনায় আক্রান্ত,,,,,,,,,,, সিরাজগঞ্জে ২ মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১২ চৌহালীতে পূর্ব শত্রুতার জেরেএক যুবককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে শেরপুরে ব্রাহ্মণ সংসদের প্রার্থনা সভা ও মানবিক সহায়তা প্রদান
জয়পুরহাটে রোগীর শ্লীলতাহানীর অভিযোগে চিকিৎসকের সাথে রোগী ও তার স্বজনদের হাতাহাতি রোগীর স্বজনদের সাংবাদিক সম্মেলন

জয়পুরহাটে রোগীর শ্লীলতাহানীর অভিযোগে চিকিৎসকের সাথে রোগী ও তার স্বজনদের হাতাহাতি রোগীর স্বজনদের সাংবাদিক সম্মেলন

রেডিও বগুড়া -জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ
জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে রোগীর শ্লীলতাহানীর অভিযোগে কর্তব্যরত
চিকিৎসকের সাথে রোগী ও তার স্বজনদের হাতাহাতি হয়েছে, এ ঘটনায় উভয় পক্ষ
সদর থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দায়ের করেছেন।এ ঘটনায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জয়পুরহাট জেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন রোগীর মা জীবননাহার বেগম।
রোগীর মা জীবননাহার বেগম জানান, মঙ্গলবার বিকেলে জয়পুরহাট জেলা আধুনিক
হাসপাতালে ভর্তি হয় আমার মেয়ে। হাসপাতালের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ৩০ নম্বর বেড
তার নামে বরাদ্দ হয়। ওই দিনই দিবাগত রাত ১ টার দিকে ওই ওয়ার্ডের কর্তব্যরত
চিকিৎসক ডা: মাহবুবুল হক রয়েল প্রথমে তাকে চেকআপ করেন। পরে রাত
আড়াইটার দিকে চিকিৎসক মাহবুবুল আবারো চেকআপ করতে আসে।
তিনি আরও জানান, চিকিৎসক বার বার আমার মেয়ের কাছে নার্স ছাড়াই
চেকআপ করতে আসে,ওই চিকিৎসক চিকিৎসার নামে তাঁর মেয়ের শরীরের
স্পর্শকাতর জায়গা স্পর্শ করলে সে প্রতিবাদ করে। এতে আমার মেয়ে চিকিৎকের
হাতের আঙ্গুল ভেঙ্গে দেওয়ার চেষ্টা করে। পরে চিকিৎসক দ্রুত সেখান থেকে
পালানোর চেষ্টা করলে ওয়ার্ডের বাহিরে তাঁকে চড়-থাপ্পর মারে আমার মেয়ে। পরে তার
স্বামীও ঘটনাটি শোনার পর ক্ষিপ্ত হয়ে ওই চিকিৎসককে পিটিয়েছেন।
হাসপাতালের তত্ত্ববধায়ক ডা: এফ এম মুছা আল মানছুর জানান,জয়পুরহাট পৌর
সদরের শান্তিনগর মহল্লার জাকির হোসেন এর স্ত্রী অতিরিক্ত ঘুমের বড়ি খেয়ে
অসুস্থ্য অবস্থায় জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি হন। হাসপাতালের ২
নম্বর ওয়ার্ডের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: মাহবুবুল হক রয়েল তার চিকিৎসার
দায়িত্বে ছিলেন। হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ওই রোগী কোন কেবিনে নয়, ওয়ার্ডে
আছেন। সেখানে তার আশে পাশে অনেক রোগী ভর্তি আছেন। সেই অবস্থায় ওই
চিকিৎসকের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানীর অভিযোগ উদ্দেশ্য প্রণোদিত।
এদিকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগের ভিত্তিতে কোন তদন্ত কমিটি গঠন করার কথা
জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। এদিকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগ অস্বীকার করে চিকিৎসক মাহবুবুল হক বলেন,‘কল
পেয়ে তিনি ওই দিন রাতে দু’বার চেকআপ করার জন্য ২ নম্বর ওয়ার্ডের ৩০ নম্বর
বেডে চিকিৎসা দিতে গেছেন। সেখানে স্ট্যাথোস্কোপ দিয়ে রোগীর শরীর
চেকআপ করার সময় ওই রোগী ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁর বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানীর অভিযোগ
করেন। পরে ওয়ার্ডের বাহিরে রোগী ও তার স্বামীসহ স্বজনরা তাকে লাঞ্ছিত করেন।
জয়পুরহাট সদর থানার ভারপ্্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বলেন,এ ব্যাপারে
উভয় পক্ষে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা
নেওয়া হবে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2014 radiobogra.net

Design & Developed By: Fendonus Limited