শুক্রবার, ০৭ অগাস্ট ২০২০, ০৭:০৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জয়পুরহাট জেলা বাসীকে ঈদ উল আয্হার শুভেচ্ছা জানিয়েছে ভাইস চেয়ারম্যান অশোক কুমার ঠাকুর জয়পুরহাট পৌর বাসীকে পবিত্র ঈদ উল আয্হার শুভেচ্ছা জানিয়েছে মেয়র মোস্তাক জয়পুরহাট জেলা বাসীকে ঈদ উল আয্হার শুভেচ্ছা জানিয়েছে সংবাদপত্র হর্কাস ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক শহিদুল জয়পুরহাটে করোনাভাইরাস রোগে আক্রন্ত হয়ে জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদকের মৃত্যু চার মাস পর রশিদ হত্যা মামলার রহস্য উম্মোচন সিরাজগঞ্জে বাসচাপায় একজন নিহত; গুরুতর আহত দুই জয়পুরহাট পৌর বাসীকে পবিত্র ঈদ উল আয্হার শুভেচ্ছা জানিয়েছে মেয়র মোস্তাক জয়পুরহাট জেলা বাসীকে ঈদ উল আয্হার শুভেচ্ছা জানিয়েছে ভাইস চেয়ারম্যান অশোক কুমার ঠাকুর করোনা জয় করলেন ইউএনও মহোদয় ও তার পরিবার তাড়াশে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ
ধুনটের হাট-বাজারে ধানের দাম বৃদ্ধি: গুদামে চাল সরবরাহ নিয়ে বিপাকে মিলাররা

ধুনটের হাট-বাজারে ধানের দাম বৃদ্ধি: গুদামে চাল সরবরাহ নিয়ে বিপাকে মিলাররা

ইমরান হোসেন ইমন :
বগুড়ার ধুনট উপজেলায় সরকার নির্ধারিত মূল্যের থেকে হাট-বাজারে ধানের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় খাদ্য বিভাগের কাছে ধান বিক্রি করছেন না কৃষক। এছাড়া ধানের দাম বৃদ্ধিতে চুক্তিবদ্ধ মিলাররাও খাদ্য বিভাগের কাছে চাল সরবরাহ করা নিয়ে বিপাকে পড়েছেন। আর এ কারনে সরকারিভাবে ধান-চাল ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে এই উপজেলায়।
ধুনট উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয় সূত্রে জানাযায়, চলতি বোরো মৌসুমে ধুনট উপজেলায় ২৬ টাকা কেজি দরে ৩ হাজার ১২৯ মেট্রিক টন মোটা ধান, ৩৬ টাকা কেজি দরে ৪ হাজার ৭৮ মেট্রিক টন মোটা চাল ও ৩৫ টাকা কেজি দরে ৫০৫ মেট্রিক টন আতপ চাল ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে খাদ্য বিভাগ।
গত ২০ মে ধুনট উপজেলা খাদ্য গুদাম ও গোসাইবাড়ী খাদ্য গুদামে লটারীর মাধ্যমে কৃষকের কাছ থেকে ধান ক্রয় এবং চুক্তিবদ্ধ ৮৪ জন মিলারদের কাছ থেকে চাল ক্রয়ের উদ্বোধন করা হয়।
কিন্তু উদ্বোধনের পর থেকে গত সোমবার (১৫ জুন) পর্যন্ত একজন কৃষকও (লটারীতে নির্বাচিত) ধান বিক্রি করতে যায়নি খাদ্য গুদামে। এছাড়া চাল ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা ৪ হাজার ৭৮ মেট্রিক টন নির্ধারন করা হলেও ধুনট উপজেলা খাদ্য গুদামে মাত্র ১১৪ মেট্রিক টন এবং গোসাইবাড়ী খাদ্য গুদামে ৭০০ মেট্রিক টন মোটা চাল ও ২০০ মেট্রিক টন আতপ চাল সরবরাহ করেছে মিলাররা।
অনুসন্ধানে জানা যায়, খাদ্য বিভাগ ধান কিনছে ২৬ টাকা কেজি দরে অর্থাৎ কৃষক প্রতি মণ ধানের দাম পাচ্ছেন ১০৪০ টাকা। অথচ ধুনট উপজেলার হাট-বাজারগুলোতে ধান ৯৫০ থেকে ১১০০ টাকা মণ দরে ধান বিক্রি হচ্ছে।
চৌকিবাড়ী গ্রামের কৃষক আজিত সরকার জানান, খাদ্য গুদামে ধান বিক্রি করতে অনেক হয়রানি ও সময় অপচয় হয়, সেই তুলনায় হাটে ধান বিক্রি করলেই লাভ বেশি হয়।
গোপালনগর ইউনিয়নের চকডাকাতিয়া গ্রামের কৃষক নূরুন্নবী সরকার জানান, গত মৌসুমে তিনি ১৩ বিঘা জমিতে মোটা ধান চাষ করেছিলেন। কিন্তু খোলা বাজারে প্রতি মন মোটা ধান বিক্রি করেছেন ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা দরে। তাই এবার তিনি চলতি মৌসুমে ১০ বিঘা জমিতে চিকন ধান ও ৩ বিঘা জমিতে মোটা ধান আবাদ করেন। বর্তমানে খোলা বাজারে প্রতি মন মোটা ধান ৯২০ থেকে ৯৫০ টাকা এবং চিকন ধান ৯৫০ থেকে ১১০০ টাকা মন দরে বিক্রি হচ্ছে। আর খাদ্য গুদামে ধান বিক্রি করতে হলে শুকানো খরচ এবং পরিবহন খরচ বেড়ে যায়। একারনে তিনি চলতি মৌসুমে খাদ্য গুদামে ধান বিক্রি করতে যাচ্ছেন না।
ধুনট উপজেলা চাল কল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও মেসার্স হামিদ চাল কলের স্বত্বাধিকারী সাইদুর রহমান জানান, বর্তমান বাজার দর অনুযায়ি ৯২০ টাকা দরে প্রতি মন ধান ক্রয় করে ২৫ কেজি চাল বের হয়। এতে প্রতি কেজি চালের মূল্য দাড়ায় ৩৬ টাকা ৮০ পয়সা। এছাড়াও পরিবহন খরচ ও লেবার খরচ সহ প্রতি কেজি চালের মূল্য দাড়ায় ৩৭ থেকে ৩৮ টাকা। আর খাদ্য বিভাগ মিলারদের কাছ চাল কিনছে ৩৬ টাকা কেজি দরে। একারনে চলতি মৌসুমে খাদ্য বিভাগে চাল সরবরাহ করতে চুক্তিবদ্ধ মিলারদের লোকশান গুনতে হচ্ছে। তাই সরকারিভাবে চালের মূল্য বৃদ্ধির দাবি জানান তিনি।
ধুনট উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা (অতিঃদাঃ) রবিউল ইসলাম বলেন, বর্তমানে খোলা বাজারে ধানের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় এখন পর্যন্ত খাদ্য গুদামে কোন কৃষক ধান দিতে যায়নি। এছাড়া ধানের দাম বৃদ্ধি হওয়ায় চাল সরবরাহ নিয়ে চুক্তিবদ্ধ মিলাররাও অনেকটা বিপাকে পড়েছেন। তাই চলতি মৌসুমে ধান-চাল কেনার লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে।
ধুনট উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মশিদুল হক জানান, চলতি মৌসুমে এই উপজেলায় ৭৪ হাজার মেট্রিক টন চিকন ধান ও ৩৫ হাজার মেট্রিক টন মোটা ধান উৎপাদন হয়েছে। তবে করোনার কারনে অনেক কৃষক ধান বিক্রি করছেন না। একারনে চাহিদা বাড়ায় খোলা বাজারে ধানের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে।
ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজিয়া সুলতানা জানান, ধান-চাল ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত না হলে সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2014 radiobogra.net

Design & Developed By: Fendonus Limited