সোমবার, ০৩ অগাস্ট ২০২০, ১১:১১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জয়পুরহাট জেলা বাসীকে ঈদ উল আয্হার শুভেচ্ছা জানিয়েছে ভাইস চেয়ারম্যান অশোক কুমার ঠাকুর জয়পুরহাট পৌর বাসীকে পবিত্র ঈদ উল আয্হার শুভেচ্ছা জানিয়েছে মেয়র মোস্তাক জয়পুরহাট জেলা বাসীকে ঈদ উল আয্হার শুভেচ্ছা জানিয়েছে সংবাদপত্র হর্কাস ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক শহিদুল জয়পুরহাটে করোনাভাইরাস রোগে আক্রন্ত হয়ে জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদকের মৃত্যু চার মাস পর রশিদ হত্যা মামলার রহস্য উম্মোচন সিরাজগঞ্জে বাসচাপায় একজন নিহত; গুরুতর আহত দুই জয়পুরহাট পৌর বাসীকে পবিত্র ঈদ উল আয্হার শুভেচ্ছা জানিয়েছে মেয়র মোস্তাক জয়পুরহাট জেলা বাসীকে ঈদ উল আয্হার শুভেচ্ছা জানিয়েছে ভাইস চেয়ারম্যান অশোক কুমার ঠাকুর করোনা জয় করলেন ইউএনও মহোদয় ও তার পরিবার তাড়াশে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ
২৮ বছর ধরে MPO প্রত্যাশায় বেসরকারি অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকরা

২৮ বছর ধরে MPO প্রত্যাশায় বেসরকারি অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকরা

দ্বীন মোহাম্মাদ সাব্বির, সাংবাদিক ও কলামিস্ট : বেসরকারি অনার্স-মাস্টার্স স্তরের শিক্ষকদের সংশোনাধীন জনবল কাঠামোতে অন্তর্ভুক্ত করে এমপিওভুক্তির দাবিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে মানববন্ধন, সাংবাদিক সম্মেলন, গণ অনশন সহ বিভিন্ন কর্মসূচী প্রতিনিয়তই সকলের দৃষ্টিগোচর হচ্ছে। জাতি গঠনের কারিগরদের (শিক্ষকদের) পাঠদানের বিনিময়ে এমপিও (মান্থলি পে ওর্ডার) প্রাপ্তির জন্য পথে দাঁড়িয়ে দাবি আদায়মুলক এ সকল কর্মসূচী গোটা সমাজকে নাঁড়া দেয়৤ এমপিও না পেয়ে দেশের প্রায় ৩,৫০০ জন শিক্ষক অনাহারে, অর্ধাহারে লক্ষ লক্ষ মেধাবি শিক্ষার্থীদের দিনের পর দিন পাঠদান করে আসছে। ১৯৯৩ সাল থেকে অনার্স চালু হওয়ার পর দীর্ঘ ২৭/২৮ বছরে এ ব্যপারে কোন সমাধান আসেনি । দাবি আদায়মুলক বিভিন্ন কর্মসূচীতে শিক্ষকরা উল্লেখ করে জানিয়েছেন, তারা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত বেসরকারি কলেজসমূহে অনার্স-মাস্টার্স কোর্সে শতভাগ বৈধভাবে নিয়োগপ্রাপ্ত । দীর্ঘ ২৭ বছর ধরে অদ্যাবধি বাংলাদেশে উচ্চ শিক্ষা বিস্তারে এবং সরকারে জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ এর অধ্যায় ০৮, কৌশল ০৬ (পর্যায়ক্রমে ডিগ্রি পাস কোর্স তুলে দিয়ে ৪ বছর মেয়াদী অনার্স কোর্স চালু করা হবে) বাস্তবায়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। এমপিও বঞ্চিত শিক্ষকদের দাবি, তারা বেসরকারি কলেজে উচ্চ শিক্ষায় পাঠদান করে আসছে। কিন্তু এ বিষয়টি বর্তমান বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের (স্কুল ও কলেজ) জনবল কাঠামো ও এম.পি.ও নীতিমালা-২০১৮’তে অন্তর্ভুক্তির কোন নির্দেশনা না থাকায় তারা এমপিওভুক্ত হতে পারছেন না। ফলে আমরা সাড়ে তিন হাজার শিক্ষক উচ্চ শিক্ষায় পাঠদান করার সত্যেও আর্থ-সামাজিকভাবে মানবেতর জীবন-যাপন করছে। বেসরকারি নন এমপিও অনার্স মাস্টার্স স্তরের শিক্ষকদের অভিযোগ, তাদের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ কেউ বেতনের দ্বায়িত নিতে চান না, যা অত্যন্ত অমানবিক কাজ৤ শিক্ষার সকল স্তরে সরকারি নীতিমালা থাকলেও উচ্চশিক্ষা স্তরে বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্স স্তরে কোন নীতিমালা নেই । এছাড়া মাদ্রাসা পর্যায়ে কামিল ও ফাজিল স্তরে জনবল কাঠামো থাকলেও বেসরকারি অনার্স-মাস্টার্স স্তর জনবল কাঠামোর বাইরে! বেসরকারি কলেজে একই পদ্ধতিতে অনার্স-মাস্টার্স স্তরে নিয়োগপ্রাপ্ত হয়ে জাতীয়করণকৃত শিক্ষকেরা যদি আত্তীকরণ হতে পারে তবে বেসরকারি শিক্ষকদের এমপিও কেন নয়? এছাড়া একই এমপিওভুক্ত কলেজে যেখানে ইন্টারমিডিয়েট ও ডিগ্রির শিক্ষকেরা এমপিওভুক্ত হতে পারে সেখানে অনার্স-মাস্টার্স স্তরের শিক্ষকেরা কেন বঞ্চিত থাকবে? -বিভিন্ন সময় এধরেনের প্রশ্ন তোলেন নন এমপিও শিক্ষকরা। তবে আশার বাণী হলো যে,এমপিও নীতিমালা ও জনবল কাঠামো /২০১৮ “পর্যালোচনা ও সংশোধন কমিটির সম্মানিত সদস্যগণ ননএমপিও অনার্স মাস্টার্স কোর্সের শিক্ষকগণকে জনবলে অন্তর্ভুক্ত করে এমপিও দেয়ার বিষয়ে মতৈক্যে পৌঁছেছেন বলে বিভিন্ন প্রিন্ট ও অনলাইন সংবাদ মাধ্যমে জানা গেছে। ২৭ বছর ধরে চলমান পরিস্থিতিতে উচ্চ শিক্ষাদানে নিয়োজিত বেসরকারি অনার্স-মাস্টার্স স্তরের সকল শিক্ষকের হৃদয়ের বোবা কান্না উপলব্ধি করে এমপিও ঘোষণার জন্য প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী,শিক্ষা উপমন্ত্রীসহ সরকারের নীতি নির্ধারকগণের দিকে চেয়ে আছেন জনবলে অন্তর্ভুক্ত করার আশায় বেসরকারি অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকগণ।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2014 radiobogra.net

Design & Developed By: Fendonus Limited